জর্জ ফ্লয়েডকে শ্বাসরোধে হত্যা


জর্জ ফ্লয়েড
জর্জ ফ্লয়েড

হাঁটু দিয়ে গলা চেপে ধরায় শ্বাসকষ্টে জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১ জুন) একটি বেসরকারি সংস্থার ময়নাতদন্তের ফলাফলে এ তথ্য জানানো হয়। খবর সিএনএন।

ফ্লয়েডের পরিবারের দ্বারা নিয়োগ দেওয়া ওই প্রতিষ্ঠানের ময়নাতদন্তে বলা হয়, পুলিশ অফিসার ডেরেক চাওভিন ফ্লয়েডের গলা ও ঘাঁড়ে চাপ প্রয়োগ করায় শ্বাসকষ্টে মারা যায়। মৃত্যুর একাধিক ভিডিওতে দেখা যায়, ৪৬ বছর বয়সী কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডকে অন্যায়ভাবে পুলিশ সদস্যরা হত্যা করছে। এ সময় জর্জ ফ্লয়েড নিরস্ত্র ছিলেন। হাঁটু দিয়ে জর্জ ফ্লয়েডের গলা চেপে ধরা হয়। তিনি বারবার নিঃশ্বাস নেবার জন্য আর্তনাদ করতে থাকেন এবং বাঁচার আকুতি জানাচ্ছিলেন।

বিক্ষোভে উত্তাল যুক্তরাষ্ট্র। বিক্ষোভকারীদের ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ ঠেকাতে ইতিমধ্যেই অন্তত চল্লিশটি শহরে কারফিউ জারি করা হয়েছে। কারফিউ ভেঙে রাস্তায় নেমেছেন বিক্ষোভকারীরা।

এদিকে এই বিক্ষোভের উত্তাপ যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যুক্তরাজ্য, কানাডা, জার্মানি, ডেনমার্ক, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডসহ দুনিয়ার নানা প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে। এ হত্যাকাণ্ডের ন্যায়বিচার নিশ্চিতের পাশাপাশি বৈষম্য ও বর্ণবাদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলছে তারাও।

ads