সরকারি চাকরিজীবীদের বিধবা স্ত্রীদের জন্য সুখবর


স্ত্রীদের জন্য সুখবর

সরকারি চাকরিজীবীদের বিধবা স্ত্রী অথবা বিপত্মীক স্বামী ও প্রতিবন্ধী সন্তানদের জন্য সুখবর জানিয়েছে অর্থ মন্ত্রণা্লয়। মন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক প্রজ্ঞাপনে এ সুখবরের কথা জানানো হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, অর্থ বিভাগের ২০১৮ সালের ৮ অক্টোবরের প্রজ্ঞাপন মোতাবেক শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মচারীর পেনশন পুনঃস্থাপিত হয়ে থাকলে (যারা আবারো পেনশন সুবিধায় ফেরত এসেছেন) তার মৃত্যুর পর তার বিধবা স্ত্রী বা বিপত্নীক স্বামী ও প্রতিবন্ধী সন্তান (যদি থাকে) পুনঃস্থাপিত পেনশন সুবিধা প্রাপ্য হবেন।

এছাড়া তাদের চিকিৎসা ভাতা ও উৎসব ভাতা প্রাপ্যতার বিষয়ে অর্থ বিভাগের ২০১৭ সালের ৩ আগস্টের প্রজ্ঞাপন অনুসরণীয় হবে, অর্থাৎ তারা পেনশন সুবিধার পাশাপাাশি চিকিৎসা ও উৎসব ভাতাও পাবেন।

এর আগে ২০১৮ সালের ৮ অক্টোবরের অর্থ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকরিজীবীদের আবারও পেনশন সুবিধায় ফিরিয়ে আনার কথা হয়।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, শতভাগ পেনশন সমর্পণকারী অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারিগণের অবসর গ্রহণের তারিখ হতে ১৫ বছর সময় অতিক্রান্তের পর তাদের পেনশন পুনঃস্থাপন করা হবে। কর্মচারীর এলপিআর/পিআরএল যে তারিখে শেষ হয়েছে তার পরদিন থেকে উক্ত ১৫ বছর সময় গণনা করা হবে।

আর যিনি এলপিআর/পিআরএল ভোগ করেননি তার ক্ষেত্রে অবসর গ্রহণের তারিখ হতে উক্ত ১৫ বছর সময় গণনাযোগ্য হবে।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি

ads