স্কুলে কোয়ারেন্টাইন নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১


\আওয়াজবিডি

গ্রামের স্কুলে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার গড়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এঘটনায় এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাতে ভারতের বীরভূমের পাড়ুই থানার তালিবপুর গ্রামে কোয়ারেন্টাইন গড়তে প্রশাসন এই দুই পক্ষকে নিয়ে বৈঠকে বসে। পরে তারা চলে গেলেই এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, নিহতের নাম শেখ শ্যামবাবু (৪৫)। আরও এক তরুণ গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

জেলা প্রশাসন জানায়, বীরভূমের দুশোরও বেশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র গড়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। করোনা-সংক্রমণ দ্রুত ছড়ালে যাতে রোগীদের আলাদা রাখা যায়, সে জন্যই এমন ভাবনা বলে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের দাবি। সেই সূত্রেই সিউড়ি ২ ব্লকের বনশঙ্কা পঞ্চায়েতের অন্তর্গত তালিবপুর গ্রামের হাইস্কুলে কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্র গড়ার পরিকল্পনা ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এ ব্যাপারে এ দিন সন্ধ্যায় পঞ্চায়েত প্রধান মরিরাম দাস এবং পাড়ুই থানার পুলিশ আধিকারিকেরা গ্রামবাসীদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। প্রথম থেকেই গ্রামবাসীর একাংশের কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রে আপত্তি ছিল। তাঁদের আরও ভাবনাচিন্তা করার পরামর্শ দিয়ে আধিকারিকেরা গ্রাম ছাড়েন।

জানা গেছে, পুলিশ চলে যেতেই আপত্তি তোলা গ্রামবাসীদের সঙ্গে তুমুল বিবাদ বাধে কোয়ারেন্টাইন কেন্দ্রের পক্ষে থাকা গ্রামবাসীদের। সেই থেকেই শুরু হয় বোমা-গুলির লড়াই। সংঘর্ষের মাঝখানে পড়ে মারা যান শ্যামবাবু। খবর পেয়ে গ্রামে যায় পুলিশ। তার মধ্যেই খুনে অভিযুক্তদের বাড়িতে ভাঙচুর ও আগুন লাগানো হয় বলে অভিযোগ। পঞ্চায়েত প্রধান বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। পুলিশ-প্রশাসন বিষয়টি দেখছে।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি

ads